গরমে স্পেশাল স্কিন কেয়ার টিপস- কেয়া শেঠ

স্পেশাল স্কিন কেয়ার টিপসের সন্ধান নিয়ে হাজির দাশবাস।

সুস্মিতা দাস ঘোষ জুন 12, 2018 at 4:00

কেয়া শেঠের নাম নিশ্চয়ই শোনা আছে? অ্যারোমাথেরাপির ছোঁয়ায় স্কিন থেকে চুল সমস্ত সমস্যার সমাধান হাতের মুঠোয়। আর এই প্যাচপ্যাচে গরমেও স্কিন ও চুলের নাজেহাল সমস্যায় তিনি থাকবেন না তা কি হয়! ট্যান, রিঙ্কেল, পিগমেনটেশন, ডার্ক স্পট, ব্রন আরও কত কি। চিন্তা কি আছেনই তো কেয়া শেঠ। তার স্পেশাল স্কিন কেয়ার টিপসের সন্ধান নিয়ে হাজির আমরাও। চটপট দেখে নিন।

সুন্দর স্কিনের চাবিকাঠি প্রচুর জল

রোজ অন্তত ৮ থেকে ১০ গ্লাস জল অবশ্যই।

জলের সাথে রোজ রসালো ফল ও লেবু জল।

দিনে তিন থেকে চারবার ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

গরমে স্কিনের বন্ধু সানস্ক্রিন


অতিরিক্ত রোদ থেকেই কিন্তু ট্যান, রিঙ্কেল, ডার্ক স্পট যত সমস্যা।তাই সানস্ক্রিন ভুললে চলবেনা।

রোদ থেকে বেরোবার ১৫ থেকে ২০ মিনিট আগে অবশ্যই সানস্ক্রিন।

কয়েক মিনিটের জন্য বাইরে বেরলেও সানস্ক্রিন মেখে বেরন।

সানস্ক্রিন যেন এসপিএফ ৩০ এর কম না হয়। এর বেশী হলে আরও ভালো। এর জন্য কেয়া শেঠের হিট প্রুফ আমব্রেলা সানস্ক্রিন এসপিএফ ৭৫ তো আছেই।

যদি অলরেডি ট্যান পড়ে যায়, তাহলে ব্যবহার করতে পারেন কেয়া শেঠের অক্সি ডি ট্যান প্যাক।

সপ্তাহে তিনদিন। জাস্ট প্যাক লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। তারপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। পাবেন ট্যান মুক্ত স্কিন।

এর সাথে অবশ্যই ছাতা ও সানগ্লাস।

ময়েশ্চারাইজার

গরমে স্কিন পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি, ময়েশ্চারাইজারও কিন্তু একইভাবে গুরুত্বপূর্ণ। স্কিনের স্বাভাবিক ময়েশ্চারকে হারাতে দেবেন না।

ব্যবহার করুণ জেল বা ওয়াটার বেশ ময়েশ্চারাইজার।

রাতে বাড়ি ফিরে স্কিন ভালো করে পরিষ্কার করে, টোনিং করে তারপর ময়েশ্চারাইজার লাগান।

এক্সফলিয়েট

স্কিন ভেতর থেকে পরিষ্কার না থাকলে কিন্তু, মেকআপ করেও সেই লুকটা আসবেনা। তাই স্কিন এক্সফলিয়েশন মাস্ট।

রোজ এক্সফলিয়েট করার দরকার নেই। সপ্তাহে দু থেকে তিনদিন মুখ ও বডির স্কিন এক্সফলিয়েট করুণ।

বাজার চলতি ভালো স্ক্রাবার দিয়ে স্কিন এক্সফলিয়েট করতে পারেন। নাহলে ঘরোয়া স্ক্রাবারও বানিয়ে নিতে পারেন।

বেশীক্ষণ নয় স্ক্রাবিং করবেন দু থেকে তিন মিনিট।

পা কে এড়িয়ে যাবেন না কিন্তু। পায়ের পাতাও স্ক্রাবিং করবেন।

অন্যান্য টিপস

এই গরমে স্নানের জলে কয়েক ফোঁটা ব্যবহার করুণ কেয়া শেঠের আঙ্কুশ। সারাদিন থাকবেন ফ্রেশ। এবং গরমের স্কিন রাশ থেকেও রক্ষা করবে।

বাড়ি ফিরে স্কিন পরিষ্কার করে, টোনার হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন, কেয়া শেঠের কিউকামবার ওয়াটার বা কোকোনাট ওয়াটার। এটা স্কিনকে সুন্দরভাবে টোনিং করে। এবং স্কিনকে ভেতর থেকে ঠাণ্ডা ও ফ্রেশ রাখবে।

গরমে ব্যবহার করুণ হালকা মেকআপ।

সুতির হালকা পোশাক পড়ুন।

গরমে স্কিন ভালো রাখতে অ্যালোভেরা বেশ ভালো। তাই সপ্তাহে দু তিনদিন অ্যালোভেরা জেল লাগাতেই পারেন স্কিনে।

আর সবশেষে যেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ সেটা হল ডায়েট। গরমে অবশ্যই ফ্রেশ হেলদি খাবার খান।

থাইয়ের অতিরিক্ত চর্বি কমানোর সহজ উপায়

চুল ওঠা বন্ধ করুন সহজেই ২টি ঘরোয়া উপকরণ ব্যবহার করে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।